Jump to content
News Ticker
  • News ticker sample
  • News ticker sample
Sign in to follow this  
  • entries
    11
  • comments
    0
  • views
    116

পরিবহন সেক্টরে নৈরাজ্য

Sign in to follow this  
আউল

33 views

পরিবহন সেক্টরে নৈরাজ্য, সমাধান নেই- জনগন জিম্মি গুটি কয়েক পরিবহন ব্যাবসায়ির হাতে!!

ঢাকা শহরে পরিবহনে নৈরাজ্য, পিছু হটেছে প্রসাশন, সরকার - ১৫ দিন স্থগিত করার থেকে উল্লাসে ফেটে পড়ে পরিবহন মালিকরা শুরু হয়ে গেছে "যার থেকে যেমন পারো ভাড়া আদায় করো নীতির প্রতিযোগীতা" প্রতিদিন শত শত যাত্রীরা দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে, দিতে হচ্ছে পরিবহন শ্রমিকদের মর্জি মাফিক টাকা, যেমন কুড়িল বিশ্ব রোড থেকে বনানীর কাকলী অরিজ্যিনাল ভাড়া ৫টাকা, ইদানিং বঙ্গবন্ধু এয়ারপোর্ট সিটিং নামে নিচ্ছে ১০ টাকা, তাদের লোকাল নামে নিচ্ছে ৮ টাকা, ভুঁইয়া নিচ্ছে ১৫ টাকা, বিকাশ নিচ্ছে ২০ টাকা, মনজিল ২০ টাকা, যা বিএরটিসি নিচ্ছে ৫টাকা, গাড়ি পাওয়া ভাগ্যের ব্যাপার তাই মানুষ সামনে যেটা পাচ্ছে সেটাইতে উঠছে, আর ছিনতাই হচ্ছে তাদের সর্বস্বঃ, এটা সবাই জানেন, আলোচনা করেন টিভির টক শো গুলোতে কিন্ত সমাধানের কোন আন্তরিকতা নেই, এই প্রসঙ্গে উত্তর সিটি কর্পোরেশনের সিটি মেয়র নগর পিতা মন্তব্য করেন, সবই কালো টাকায়.................

এই অরাজগতা শুরু হলো কিভাবে? কিভাবে বা কেন পরিবহন মালিকদের মধ্যে আরো বেশী লোভের সৃস্টি হলো?
"গুলশানে হলি আর্টিজান" হামলার পর হঠাৎ করে সেখানকার জনগনের একমাত্র পরিবহন ৬ নং বাস বন্ধ করে দেয়া হয়, যার ভাড়া ছিলো ২ থেকে ৫ টাকা....সেখানে উত্তর সিটি কর্পোরেশনের "ঢাকার চাকা" নামের গাড়ি নামানো হয়, যে যেখানে নামবে ১৫ টাকা দিতে হবে, ৩৭ সিটির এই গাড়িতে যাত্রী নেয় মাঝে মধ্যে ৪৫~৫০ জন, এসি প্রায়ই থাকে বন্ধ.....আর এত শর্ট দুরত্বের গাড়িতে এসি দিয়ে সাধারন মানুষ কি করবে? তাদের প্রয়োজন কম ভাড়া, আর এই বাসে কোন যাত্রী কাকলী থেকে উঠি আধা কিলো দুরত্বে বনানী বাজার নামলে ১৫ টাকা, বনানী বাজার থেকে আরেকজন উঠে গুলশান ২ নম্বরে নামলে ১৫ টাকা, ঘুলশান ২ নম্বর থেকে নতুন বাজার ১৫ টাকা, প্রতিটি স্টপিজেই যাত্রী তো উঠে আর নামে, সেই হিসাবে কাকোলী থেকে নতুন বাজার তারা গড়ে ভাড়া কত করে আদায় করছে? এই লাভ জনক প্রদ্ধতি দেখে পরিবহন মালিকরা এরই সুযোগ গ্রহন করে, যার যেমন ইচ্ছে সে অনুযায়ী ভাড়া নিচ্ছে, কোন যাত্রী কোন স্টপিজে নামবে সেটা কোন কথা নয়, বাসটি যদি গাজিপুর থেকে মতিঝিল কিংবা ধউড় থেকে নিউমাকের্টে যায় যাত্রীরা সম্পুর্ন ভাড়াই দিতে হবে, যে যেখানেই নামুক, এক সিটে যাত্রী উঠবে আর নামবে কিন্ত ভাড়া সেই শুরু আর শেষ স্টপিজ পর্যন্ত দিবে হবে............তাদেরই বা আর দোষ কী? ঢাকার চাকা যদি পারে তাদের পারতে সমস্যা কোথায়??

আর "গুলশানে হলি আর্টিজান" হামলার পর হঠাৎ করে নামানো হয় পুরাতন রিক্সা কোড নাম্বর দিয়ে, আগে ইউনাইটেড মোড় থেকে গুলশান ২ এর রিক্সা ভাড়া ছিলো ১৫ টাকা, এক রাতেই তা হয়ে যায় ৩৫ টাকা, যদিও প্রতিটি রিক্সার পিছনে ভাড়ার তালিকা দেয়া আছে, কোন রিক্সাওয়ালা তা মানেই না......যা তারা মানে না তা ঝুলিয়ে রেখেই বা কী লাভ?
যেমন রাস্তায় সিএনজি অটো গুলোকে যদি বলেন, অমুক জায়গায় যাবে সিএনজি এটোওয়ালা বলবে যাবে মিটার থকে ২০ টাকা ৩০ টাকা.......বাড়িয়ে দিতে হবে.......অথবা যে এলাকার মিটারে ১০০টাকা আসবে তার ভাড়া চাইবে ২৫০টাকা

সরকারী কর্মচারীদের সুযোগ সুবিধা বেশী, তাদের আনা নেয়ার জন্য পরিবহনের ব্যাবস্থা আছে, তাদের বেতন বেড়েছে ১২৮%, চাকুরী শেষে কোটি টাকার পেনশান, আর পয়সাওয়ালাদের পাইভেট আছে সে তার তার পরিবার যেখানে যাবে তাদের প্রাইভেটে যায়, আর যারা নিতীনির্ধারন করেন তাদেরও আছে ব্যাক্তিগত গাড়ি, সুতরাং জনগননের এই কস্টের কথা বা দুর্ভোগ কমাবাের জন্য কে এগিয়ে আসবে??

 
Sign in to follow this  


0 Comments


Recommended Comments

There are no comments to display.

Create an account or sign in to comment

You need to be a member in order to leave a comment

Create an account

Sign up for a new account in our community. It's easy!

Register a new account

Sign in

Already have an account? Sign in here.

Sign In Now



×